সিরাজুম মুনিরা ময়ূখ এর কবিতা

650

ভালোবাসবে?‌‌‌‌‌

ভালোবাসবে?
যখন ভেঙেচুরে নিজের ভেতর
তোমার কাছে হাত পাতবো!?
ভালোবাসবে?

যখন চোখ ঝাপসা হয়ে আসা কান্না
লুকিয়ে তোমার দিকে চেয়ে থাকবো?
ভালোবাসবে?

যখন বুকের ভিতর হৃদপিন্ড
উলট পালট রক্তে ভেজা কষ্ট হবে!?
ভালোবাসবে না বলো?

বিষন্নতা দীর্ঘশ্বাসে এই আমি চাইবো যখন
তোমার পাশে একটু খানি ছায়া হতে?
ভালোবাসতে দেবে তখন!?

ঠোঁটের কোনে লুকিয়ে ব্যাথা
বলবো আমি হাজার কথা।
চোখের কোনে জল গড়ালে
হাত বাড়িয়ে মুছে দিতে কাছে আসবে!
ঠিক তখন ও ভালোবাসবে??

স্থলপদ্মের মতো নয়


তোমাকে ভালোবেসে,
এনে দিতে পারবো না ১০১ টা নীল পদ্ম।
জানোতো নীল পদ্মের বড় সংকট।

তোমাকে ভালোবেসে,
আকাশের চাঁদ টাও এনে দিতে পারবো না।
মৃত চাঁদে সৌন্দর্য নেই।

বিরহের দিন শেষে,
ঘুমিয়ে পড়া সূর্যের গোধুলি,
তোমাকে দিতে আমার আপত্তি নেই।

আকাশ ছোঁয়া পাহাড় চূড়ায়,
মেঘের ভেলায় ভাসাতে
আমার কোন অলসতা নেই।

ডিংগী নৌকোয় ঘুরে ঘুরে,
শুকনো চড়ের কাশফুল এনে দিতে চাই।
এ সব কিছুই আমি দিতে চাই,
শুধু মিথ্যে আশ্বাস টুকু ছাড়া।

তোমাকে নিয়ে বিভোর হয়ে
সপ্ন দেখতে পারি।
তোমার সাথে দুপা মিলিয়ে
পথ হাঁটতে পারি।

শীতল হাওয়ায় ওম চাদরে,
জড়িয়ে বুকের মধ্যে আটকে রাখতে পারি।
সব পারলেও, শুধু পারিনা
তোমাকে আমার করে
আমার কাছে রাখতে
এই অপারগ আমি চেয়ে থাকবো।

১০১ টা গোলাপ দেবো,
বেলীফুলের মালায়
তোমার খোঁপা সাজিয়ে দেবো।
স্থলপদ্মের ফুলের মতো
শেষ বিকেলে ঝড়ে যেও না শুধু।!

এ কেমন তুমি?


তোমার কাছে আমার অনুভূতির কোন মুল্য নেই,
আমার মন চূর্নবিচূর্ন হয়ে যাক,
দিশেহারা বাতাসের মতো উরে বেড়াক উদাস হয়ে
তাতে তোমার কি এসে যায়!?

তোমাকে ভালোবাসতে বাসতে,
আমি আজ বডড ক্লান্ত হয়েছি জানো!?
তোমার মনোযোগ পেতে আমার একটার পর একটা প্রচেষ্টা,
একটার পর একটা মিথ্যে হাসি,
সম্পর্কটাকে টিকিয়ে রাখতে দিনের পর দিন এতো আয়োজন,
সত্যিই আমি বড় ক্লান্ত হয়ে গেছি।

জানোতো,
আর যাই হোক নিজের সাথে অভিনয় চলেনা।
দিন শেষে নিজের দুঃক্ষ লুকোনো মিথ্যে হাসি
বড় তিরস্কার করে নিজেকে।
চার দেয়ালের মাঝে বড় অভিনেত্রী মনে হয়।
তাই নিজের সাথে অভিনয় আর নয়।

তোমার দেয়া শত সহস্র আঘাত,
আমার আহত হৃদয়
ফিরিয়ে দিয়েছিলো
কি সুন্দর মুচকি হাসিতে।
তুমি বুঝতেই পারোনি।
অথবা বুঝতে চাওনি ইচ্ছে করেই।

তোমাকে চোখে হারানোর ভয়ে,
মনে হারানোর শোকে,
অভিমানে, অনুযোগে মস্তিষ্ক ক্ষয়ে গেছে।
চোখের নিচের কালো দাগ বলে দেয়
কত নির্ঘুম রাত কাটিয়েছি,
কেবল তোমার অপেক্ষাতে,
তোমার অশান্ত সময় এর প্রতিক্ষাতে।

তুমি তোমার মতো, ভালোই আছো,
দিব্যি ঘুরছো, ফিরছো, অন্য অভ্যেস এ।
এই আমি বলে কেউ আছি
হয়তো সেটাও ভুলে গেছো।
হয়তো ভালোলাগা টা আর নেই।

আমার অনুভূতির মুল্য নেই,
আমার ইচ্ছের কোন সম্মান নেই।
তাই নিজেকে লুকোতে এখন হাজার প্রচেষ্টা।
হাসির অন্তরালে পড়ে থাকে পৃষ্ঠা জুড়ে কষ্টের উৎপাত।

একটা সময় তুমি আমার প্রেমে হাবুডুবু খেতে,
আমার চেয়ে তোমার অনুভূতির তীব্রতা ছিলো
অনেক বেশি।
সেই ভালোবাসাতো আমি তোমার থেকেই শিখেছি।
আমাকে ভালোবাসতে শিখিয়ে হারিয়ে গেলে তুমি।
ফিরোনা তোমার মিথ্যে ভালোবাসায় আবার কোন
নারী সপ্নে বুঁদ হয়ে যাক।
তারপর উপহাসে ভেঙে পড়ুক।

অনি/সিনেটিভি