চলচ্চিত্র পরিচালক রুহুল আমিন-এর অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী

209

আজাদ আবুল কাশেম

ভালো ছবি’র গুণি নির্মাতা রুহুল আমিন ৭ জানুয়ারি ২০১৩ সালে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে তাঁর প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই। তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

রুহুল আমিন ১৯৪০ সালের ১৪ মার্চ, ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পৈতৃক নিবাস গাজীপুর জেলার পুবাইলে। প্রয়াত চলচ্চিত্রকার সুভাষ দত্তের ‘কাগজের নৌকা’ ছবি’র সহকারি পরিচালক হিসেবে চলচ্চিত্রে তাঁর কর্মজীবন শুরু হয়।

১৯৭২ সালে, আনোয়ার হোসেন-রোজী ও উজ্জল-কবরীকে জুটি করে ‘নিজেরে হারায়ে খুঁজি, ছবিটি নির্মাণের মাধ্যমে পরিচালক হিসেবে তাঁর অভিষেক ঘটে। ছবিটি সে সময় ব্যাপক প্রসংশিত ও ব্যবসা সফল হয়েছিলো। এরপর রুহুল আমিন, নায়ক রাজ রাজ্জাকের প্রযোজনায় নির্মাণ করেছিলেন ‘বেঈমান’ ছবিটি। এই ছবিতে রাজ্জাক-সুজতা ও কবরী জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছিলেন। এই ছবিটি দারুন ব্যবসা সফল হয়েছিলো।
পরিচালক রুহুল আমিনও লাইম লাইটে চলে আসেন এই ছবির মাধ্যমে ।

তারপর বুলবুল আহমেদ ও অঞ্জনাকে জুটি করে ‘গাংচিল’ ছবিটি নির্মাণ করলেন। এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য খল অভিনেতা আহমেদ শরীফ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরুস্কার পেয়েছিলেন। পরিচালকও ব্যাপক প্রসংশিত হয়েছিলেন।

এবার ‘রঙ বেরঙ’ নামে আরো একটি ছবি পরিচলনা করেন রুহুল আমিন। এই ছবিতে জুটি হিসেবে ছিল উজ্জল ও সুচরিতা। এই ছবিও ব্যবসা সফল হয়। ‘টার্গেট’ নামে আরো একটি ছবি নির্মাণ করেন রুহুল আমিন। অঞ্জনা ও সোহেল চৌধুরীসহ অনেকেই ছিলো এই ছবিতে।

পরিচালক রুহুল আমিন কমসংখ্যক ছবি নির্মাণ করলেও, ছবি’র গুণগতমান বিচারে তিনি ছাঁড়িয়ে গেছেন অনেক’কেই। তাঁর নির্মিত সবগুলো চলচ্চিত্রই, পেয়েছে সফলতা হয়েছে প্রসংশিত। একজন নম্র-ভদ্র খুবই ভালো মানুষ হিসেবে রুহুল আমিন, চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্টদের স্মৃতিতে চির অম্লান হয়ে থাকবেন।

অনি/সিনেটিভি