শাকিব খানের ‘নবাব এলএলবি’ রিভিউ

586

জনি চৌধুরি

যে দেশে একটা মেয়ের পিরিয়ড হলে বা পিরিয়ডের ডেট দুই একদিন এদিক সেদিক হলে পরিবারকে জানাতে বিব্রত হয় বা ভয় পায়। সে দেশে শুভ্রার মতো একটি মেয়ে ধর্ষিতা হয়ে শত শত মানুষের সামনে এসেছে বিচার চাইতে।

পিরিয়ড তো কিছুদিনের জন্য অসুস্থ করে। কিন্তু ধর্ষন তো একটা মেয়েকে চিরদিনের জন্য স্তব্ধ করে দেয়। এখন সময় এসেছে সেই স্তব্ধতা ভাঙার। আমাদের সামাজিক সচেনতা দিয়ে সেটি ভাঙতে হবে। নারী ধর্ষন মানেই স্বাধীনতা হত্যা।

‘নবাব এলএলবি’ দুই পার্টের একটা মুভি। সময় ৩ঘন্টা ১০মিনিট। অভিনয় করেছেন- শাকিব খান, মাহিয়া মাহি, অর্চিতা স্পর্শিয়া, শহীদুজ্জামান সেলিম প্রমুখ।পরিচালক- অনন্য মামুন। মুভিটির কাহিনীটা খুব চমৎকার। পুরো কাহিনী ধর্ষন নিয়ে।

সবার অভিনয় নিয়ে কিছু কথা। শাকিব খান প্রথম পার্টে অনেক ভাড়ামো অভিনয় করেছে। দর্শককে জোর করে হাসানোর চেষ্টা করছে কিন্তু দ্বিতীয় পার্টে একদম সিরিয়াস অভিনয়। প্রথম পার্ট থেকে দ্বিতীয় পার্টে অভিনয় চমৎকার। সারা মুভিতে মাহির উপস্থিতি খুব অল্প। যেটুকু অভিনয় করছে ন্যাকামো মনে হয়েছে। এখানে মাহির ক্যারেক্টার না আনলেও চলতো। স্পর্শিয়া প্রথম পার্ট দ্বিতীয় পার্ট অভিনয় অসাধারণ। এক্সপ্রেশন ডায়লগ ডেলিভারি খুব ভালো। তার অভিনয় সত্যি অনেক ভালো লাগছে। স্পর্শিয়ার পর সেলিমের অভিনয় ভালো লেগেছে। এ টু জেড অভিনয় পুরো সিরিয়াস।

শবনম পারভিন এই মুভিতে একজন উকিল। তিনি উকিল নাকি কমেডি করতে বসছে কিছু বুঝলাম না। অভিনয় দেখে হতাশ পুরো। পরিচালক মামুন সাহেব এই বড় বাজেটের মুভিটা হলে মুক্তি দিতে পারতো। এমনিতে বাংলা সিনেমার করুন অবস্থা। প্রথমে হলে তার পর না হয় অ্যাপসে রিলিজ দিতে পারতো। পরিচালনা কোন ত্রুটি পায় নি। দেখে নিতে পারেন হয়তো আপনাদেরও ভালো লাগবে। হ্যাপি ওয়াচিং।

অনি/সিনেটিভি