কীর্তি সুরেশের জন্মদিন

239

কীর্তি সুরেশের জন্মদিন
-মেহেদী মোল্লা

২০১৬ সালে পরিচালক নাগ অশ্বিনের মাথায় চিন্তা আসে, সে সাবিত্রি ম্যামের বায়োপিক বানাবে। নাম হবে- Mahanati (মহান অভিনেত্রী)!

কীর্তি সুরেশকে যখন এই সিনেমার প্রস্তাব দেওয়া হয়, কীর্তি ‘না’ করে দেয়। সাড়ে ৪ ঘন্টা ধরে স্ক্রিপ্ট শুনিয়ে হতাশ হতে হয় নাগ অশ্বিনকে। কীর্তি জানতো, ৩ যুগ আগে মারা যাওয়া অভিনেত্রীটার কী ক্রেজ ছিলো! এখনো তার কথা কতটা সবাই স্মরণ করে! কত অভিনেত্রী তাকে আইডল মানে! তার লাইফস্টাইলও যে বেশ ভিন্ন এবং এটা সহজ হবে না- স্ক্রিপ্ট শুনেই কীর্তি আইডিয়া করে।

কীর্তি ভাবে, সে পারবে না এই রোলের জাস্টিফাই করতে। আর না পারলে অনেক নেগেটিভ মন্তব্যও সহ্য করা লাগতে পারে। সাবিত্রির রোল বলে কথা! সবার প্রত্যাশা বেশি থাকবে।

তবে, কীর্তির মা (সাবেক অভিনেত্রী) ছিলো সাবিত্রির খুব বড় ফ্যান। তার মেয়ে এমন একটা সুযোগ পেয়ে ছেড়ে দিবে, তা সে মানতে পারছিলো না। কীর্তিকে সে বুঝায়, রাজি করায়… এরপর কীর্তি আবার ডাকে নাগ অশ্বিনকে। নাগ অশ্বিনও যথারীতি কীর্তি সুরশকে ভরসা দেয়… কীর্তির এক্টিং স্কিলের উপর নাগ অশ্বিনের বিশ্বাসটা ছিলো মজবুত। সেটা জানায়।

মূলত নাগ অশ্বিনই কীর্তি সুরেশকে অনুপ্রেরণা দিয়ে তাকে কাস্ট করায় ‘সাবিত্রি’ হিসেবে। এরপর শ্যুটিং হয়, যোগ দেয় সাউথের নামকরা অনেক অভিনেতা, অভিনেত্রী। তবে, আকর্ষণ তো কীর্তিকে ঘিরেই, সে হতাশ করে না।

২০১৮ সালের মে মাসে ‘মহানাটি’ রিলিজ পায়। প্রশংসায় ভেসে যায় কীর্তি সুরেশ। সাবিত্রির জীবনকে দেখে সবাই কীর্তির মধ্য দিয়ে। ২৮ বছর পর টলিউডে আসে সেরা অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কার। যে স্বপ্নটা খুব কম অভিনেত্রীরই সত্যি হয়, সেই স্বপ্ন ধরা দেয় কীর্তি সুরেশের হাতে।

ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড জয়ী অভিনেত্রী কীর্তি সুরেশকে জানাই জন্মদিনের শুভেচ্ছা। সৌন্দর্য ও অভিনয় দক্ষতা দিয়ে মুগ্ধ করেছে, করতে থাকুক… শুভ জন্মদিন!

সাউথ ইন্ডিয়ান মুভি ফ্রিক।

অনি/ সিনেটিভি