সালমা হায়েক এখন লক্ষ্মীপুজোয় মগ্ন, তিনি তাতে শান্তি পান!

276

দেবী লক্ষ্মীর সঙ্গে আত্মিক যোগ খুঁজে পান অভিনেত্রী সালমা হায়েক। দেবীর অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্য থেকেই মানসিক শান্তি পাচ্ছেন তিনি। তাই ইদানীং লক্ষ্মীপুজোয় মন দিয়েছেন অভিনেত্রী। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় লক্ষ্মীদেবীর ছবি শেয়ার করেছেন সালমা। সেখানেই নিজের মনের কথা শেয়ার করেছেন তিনি। লিখেছেন, ‘নিজের অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্যের সঙ্গে যোগসূত্রের সময় আমি দেবী লক্ষ্মীর আরাধনা করি। যিনি হিন্দু শাস্ত্রমতে ধন, ভাগ্য, প্রেম, সৌন্দর্য, মায়া, সুখ ও প্রতিপত্তির প্রতীক। তাঁর ছবি দেখলেই আমি মনের ভিতর থেকে আনন্দিত হই।’

হলিউডের এমন তাবড় অভিনেত্রীর আচমকা হিন্দুশাস্ত্র ও লক্ষ্মীদেবীর প্রতি ভক্তি দেখে অনেকেই হতবাক। হলিউডের পাশাপাশি সালমা অভিনয় করেছেন মেক্সিকান ছবিতেও, প্রযোজক হিসেবেও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। তবে সে সবের আনন্দ যেন এই আনন্দকে ছাপিয়ে যেতে পারেনি। তিনি নিজের অন্তরের সৌন্দর্য উপলব্ধি করেছেন দেবীলক্ষ্মীর আরাধনার মাধ্যমে। প্রতিদিন ধ্যানের শুরুতে হিন্দু দেবীকেই স্মরণ করেন বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন তারকা সালমা হায়েক।

২০১৯ সালে হলিউডের আরেক তারকা উইল স্মিথও গঙ্গা আরতি করার বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। পোস্টে লিখেছিলেন, ‘আমার ঠাকুমা বলতেন, অভিজ্ঞতার মাধ্যমেই ঈশ্বর শিক্ষা দেন। ভারতে এসে এবং অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করে, এখানকার মানুষ, প্রাকৃতিক শোভা আমাকে নতুন করে ভাবতে শেখাচ্ছে। আমার শিল্প ও বিশ্বের সামনে আমার সত্যতা।’ সালমা হায়েকও ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি আকৃষ্ট হয়েছেন। ২৩ বছর বয়সে মেক্সিকান টেলিভিশন সিরিজ টেরেসার মাধ্যমে নিজের কেরিয়ার শুরু করেন সালমা। নয়ের দশকে লস অ্যাঞ্জলসে চলে যান হলিউডে কেরিয়ার গড়ার তাগিদে। দেসপেরাদো ছবিতে অ্যান্টোনিও ব্যান্ডারাসের বিপরীতে অভিনয় করে নজর কাড়েন সালমা। ২০০২ সালে ফ্রিডা ছবির জন্য অস্কারে মনোনীত হন সালমা হায়েক। প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী ফ্রিডা কাহালোর জীবন নির্ভর ছবিটির অন্যতম প্রযোজকও ছিলেন তিনি। শীঘ্রই মার্ভেলস ইটারনালে দেখা যাবে সালমাকে। তাঁর চরিত্রে নাম আজাক। চিরন্তনের খোঁজে আধ্যাত্মিক তালিম দেবেন আজাক।